Home / Today News / স্থগিত হওয়া সেই ম্যাচ নিয়ে নতুন কৌশল করলো ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

স্থগিত হওয়া সেই ম্যাচ নিয়ে নতুন কৌশল করলো ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

ফিফার নির্দেশ, সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে ব্রাজিলের মাটিতেই ম্যাচটা আবার হতে হবে। কিন্তু আর্জেন্টিনা ম্যাচটা খেলতেই চায় না।

ব্রাজিলের খেলতে আপত্তি নেই, তবে ব্রাজিলের বদলে ইউরোপের কোনো দেশে ম্যাচটা হলেই বেশি খুশি হবেন ব্রাজিল কোচ তিতে।

গত সেপ্টেম্বরের ব্রাজিলের সাও পাওলোর স্বাস্থ্য নিরাপত্তাবিষয়ক সংস্থা আনভিসার হস্তক্ষেপে স্থগিত হয়ে যাওয়া ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচটির ভাগ্যে শেষ পর্যন্ত কী আছে,

তা এখনো অনিশ্চিত। ক্রীড়াবিষয়ক সর্বোচ্চ আদালত সিএএসে শুনানি চলছে। তবে সিএএসে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দুই দলের দাবি অভিন্নই ছিল।

অন্তত ব্রাজিলের সংবাদমাধ্যম গ্লোবোএস্পোর্তের খবর তেমনটিই বলছে। কী দাবি? দুই দলই চেয়েছে, না খেলেই তিনটা পয়েন্ট তারা পেয়ে যাক!

করোনাবিষয়ক বিধিনিষেধ এড়াতে ইংল্যান্ডের ক্লাবে খেলা আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড় ব্রাজিলে ঢোকার ক্ষেত্রে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন,

এ অভিযোগে গত সেপ্টেম্বরে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ম্যাচে ঢুকে পড়েন আনভিসার কর্মকর্তারা। ম্যাচে ততক্ষণে পাঁচ মিনিট হয়ে গেছে।

ওই চার আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়—এমিলিয়ানো মার্তিনেজ, ক্রিস্তিয়ান রোমেরো, জিওভানি লো সেলসো ও এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়াকে মাঠ থেকে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন আনভিসার কর্মকর্তারা।

এ নিয়ে বচসায় ম্যাচ স্থগিত হয়ে যায়। পরে আর হয়ইনি। কী হবে সে ম্যাচের, এ নিয়ে গুঞ্জন এরপর আর শেষ হয়নি। মাঝে গত বছরের নভেম্বরে সংবাদমাধ্যম টিএনটি স্পোর্টস জানিয়েছে,

ব্রাজিলের কর্মকর্তারা মাঠে ঢোকায় ম্যাচ স্থগিত হয়েছে, তাই আর্জেন্টিনাকে সে ম্যাচের জন্য ৩ পয়েন্ট দেওয়া হবে। তা আর হয়নি।

তবে ওই ম্যাচের ফল ছাড়াই দুই দল অন্যদের চেয়ে অনেক এগিয়ে থেকে বিশ্বকাপের মূল পর্বে উঠে গেছে। দুই দলই পুরো বাছাইপর্বে অপরাজিত থেকেছে, ব্রাজিল লাতিন অঞ্চলের বাছাইপর্বের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থেকে উঠেছে মূল পর্বে।

কিন্তু ম্যাচটা তো হয়নি, এ নিয়ে অস্বস্তি থেকে গেছে ফিফার। বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির হিসাব, ম্যাচটি না হলে বাছাইপর্ব পূর্ণতা পায় না। তাই আর্জেন্টিনার আপত্তি আর ব্রাজিলের অনিচ্ছা সত্ত্বেও ফিফা নির্দেশ দিয়েছে ম্যাচটি আয়োজনের।

এর মধ্যেই অবশ্য আন্তর্জাতিক ক্রীড়া আদালতে (সিএএস) আপিল করেছে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল দুই পক্ষ। কী চায়? গ্লোবোএস্পোর্তেতে সেটি জানা গেছে ব্রাজিলের ফুটবল ফেডারেশনের (সিবিএফ) প্রধান এদনালদো রদ্রিগেজের কাছ থেকে।

২০০২ সালে ব্রাজিলের পঞ্চম বিশ্বকাপ জয়ের ২০তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে গতকাল আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে রদ্রিগেজ বলেছেন, ‘ওই ম্যাচের জন্য ব্রাজিলের তিন পয়েন্ট ছাড়া আর কোনো ফল সিবিএফ মানতে রাজি নয়। আর্জেন্টিনাও একই দাবিতে আপিল করেছে।’

সিএএস শেষ পর্যন্ত কোনো এক পক্ষের দাবি মেনে নিলে ম্যাচটার ভাগ্যে নতুন কিছু লেখা হবে। তবে সিএএস কারও দাবিই মেনে না নিলে? ম্যাচটি খেলতে হবে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনাকে।

ফিফা ম্যাচটির কোনো তারিখ নির্দিষ্ট করে দেয়নি, শুধু নির্দেশ দিয়েছে সাও পাওলোর নিও কুইমিকা অ্যারেনায় ম্যাচটি আয়োজনের। সিবিএফ চায়, ম্যাচটি ২৩ সেপ্টেম্বরেই আয়োজিত হোক। সে সময়ে ফিফার দুটি ‘উইন্ডো’ আছে ২৩ ও ২৭ সেপ্টেম্বর।

২৩ সেপ্টেম্বর আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ম্যাচ হলে ২৭ সেপ্টেম্বর কার বিপক্ষে খেলবে ব্রাজিল, তা অবশ্য এখনো নিশ্চিত নয়। পঞ্চম বিশ্বকাপের ২০ বছর পূর্তির অনুষ্ঠানে উপস্থিত ব্রাজিল দলের ম্যানেজার ও সাবেক মিডফিল্ডার জুনিনিও পলিস্তা শুধু বলেছেন, ম্যাচটা আফ্রিকান বা কনক্যাকাফ অঞ্চলের কোনো দলের বিপক্ষে হতে পারে।

Check Also

২য় বাংলাদেশি খেলোয়াড় হিসেবে দুবাই থেকে বিশেষ সম্মাননা পেলেন তামিম ইকবাল

ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল দুবাই সরকারের গোল্ডেন ভিসা পেয়েছেন। বিষয়টি তামিম নিজেই নিশ্চিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *